ব্যবসায়ী মুকুল খানের অর্থায়নে তিতাসের জনগণের জন্য,২০ হাজার মাস্ক বিতরণ

0 22

 

||নিজস্ব প্রতিনিধি||

মহামারী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও অনেক মানুষ জনগণের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। এমনই একজন বৃহত্তর দাউদকান্দি’র তিতাস উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজ সেবক শাহাদাত মোশারফ খান মুকুল।

মহামারী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে তিনি কুমিল্লা উত্তর জেলা সর্বস্তরের জনগণের জন্য প্রায় ২ লক্ষ (১,৯৬,০০০) সার্জিক্যাল মাস্ক উপহার হিসেবে প্রদান করেছেন।
দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী’র সার্বিক তত্ত্বাবধানে কুমিল্লা উত্তর জেলা সর্বস্তরের জনগণের মাঝে এই মাস্ক বিতরণ করা হবে। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (০৮ জুলাই ২০২১) তিতাস উপজেলায় ২০ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তিতাস উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকারসহ অন্যান্যরা।

এ বিষয়ে তিতাস উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, মুকুল ভাই আমাদের তিতাসের কৃতি সন্তান। দেশের এমন ক্রান্তিলগ্নে তিনি তিতাস উপজেলার জনগণের জন্য ২০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক দিয়ে, তার মানবিক দৃষ্টান্ত উদাহরণ স্থাপন করেছেন। তাহার এমন মানবিক কাজের জন্য আমরা তিতাস উপজেলা বাসী তার কাছে কৃতজ্ঞ।

এ বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এবং দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.) বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায়, বৃহত্তর দাউদকান্দি কৃতিসন্তান বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক মুকুল ভাই আমার মাধ্যমে কুমিল্লা উত্তর জেলা জনগণের জন্য প্রায় দুই লক্ষ সার্জিক্যাল মাস্ক বিতরণের জন্য পাঠিয়েছেন। ক্রমান্বয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ এবং সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মাধ্যমে সর্বস্তরের জনগণের মাঝে এই মাস্ক বিতরণ করা হবে। মহামারীর এমন ক্রান্তিলগ্নে মুকুল ভাই যেভাবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন তার প্রতি আমরা কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ কৃতজ্ঞ।

উল্লেখ্য, বৃহত্তর দাউদকান্দির তিতাস উপজেলার নারানদিয়া ইউনিয়নের একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের সন্তান শিল্পপতি শাহাদাত মোশারফ খান মুকুল। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এর আগেও তিনি সাধারণ মানুষকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.