সরকারের উন্নয়নের ধারা ব্যাহত করলে, কাউকে ছাড় নয়: মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.)

0 371

||শাহিন আহমেদ|| 

সরকারের চলমান  উন্নয়নের ধারাকে কেউ ব্যাহত করতে চাইলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করেন দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.) 

সোমবার ১৬ নভেম্বর দাউদকান্দি-বাঞ্ছারামপুর-হোমনা সড়কের, গৌরীপুর বাজার – গৌরীপুর মোড়ের নির্মাণাধীন রাস্তায় আকস্মিক পরিদর্শনে গিয়ে দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.) এ কথা  বলেন। 

এই সময় স্থানীয় জনতার অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি, নির্মাণাধীন সড়কের উপর গাছ রেখে ঢালাই দেয়ায়, ঋণ অভিযোগের সত্যতা প্রমাণে সড়ক পরিদর্শন করেন। 

দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে স্থানীয় জনগণ অভিযোগ করেন, নির্মাণাধীন রাস্তার উপর গাছে রেখে ঢালাই দেয়ায় জনদুর্ভোগ ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ জনগণ। প্রায়শই যানজটে এবং রাতের বেলায় দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে যানবাহন। 

এসময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে এসে তিনি বলেন,  গাছ কাটার দায়িত্ব কি আমার?  

দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাজারের রাস্তার উন্নয়ন কাজ হয়েছে ঠিকই, সেই সাথে দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা এবং কন্টাকটারের অবহেলার কারণে, দুর্ঘটনা ঝুঁকি আরো বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। 

গাছ না কাটার জন্য, পরবর্তীতে অবশ্যই দুর্ঘটনা ঘটবে এবং দাউদকান্দির কোন এক দুর্ভাগা ব্যক্তি আহত / নিহত হবেন। তখন এর দায়িত্ব কে নিবে ? 

ছবি: নির্মাণাধীন রাস্তার উপর গাছ রেখে ঢালাই দেওয়া, সড়ক পরিদর্শন আজান দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান।

এসময় তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে কোনভাবেই প্রশ্নবিদ্ধ করার সুযোগ কারো নাই। যদি কেউ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কাজকে ব্যাহত করতে চায় তবে তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন এবং উপযুক্ত শাস্তি প্রদান করা হবে বলে তিনি হুশিয়ারি  করেন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হাসেম সরকার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ ওয়াদুদ সরকার, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি দেলোয়ার পারভেজ দোলন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিন, গরিপুর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মুসা, সাধারণ সম্পাদক রোমান হোসেন সহ স্থানীয় এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য, এমপির নির্দেশে পরে বহুল প্রতীক্ষিত এই সড়কটি গত ২৩ জুন,২০২০  থেকেই সড়কের আরসিসি ডালাইয়ের নির্মাণ কাজ গৌরীপুর মোড় অংশ থেকে শুরু হয়েছিলো।দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলীর সার্বিকভাবে তদারকিতে প্রতিকূল আবহাওয়া ও করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই অত্যন্ত দ্রুত সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যে শেষ করা সম্ভব হবে।

দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের এই সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক, এবং এটি অত্র এলাকার মানুষের প্রাণের দাবি হিসেবে রুপান্তরিত হয়েছিল। অবশেষে এমপির ডিও লেটার এর মাধ্যমে সড়ক ও জনপথ বিভাগ কাজটি করার অনুমোদনের মাধ্যমে, জনগণের প্রাণের দাবি বাস্তবে রূপান্তরিত হয়। জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সড়কের নির্মাণ কাজের অনুমোদন দেওয়ায় এমপি জেনারেল ভূঁইয়া, সড়ক-সেতু ও যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.